কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন শরিফ রেখেছিলো এক পাগল - desi video hd strange news bd viral video
people search us for - bd viral video link desi video hd all desi viral video new viral video bd link desi videos hd all desi viral video new viral video bd recent viral video link desivideos desi video hd all desi viral video hd - new desi videos hd download link. In desivideos you can share your viral video desi video for all desi viral video hd bangladeshi viral video desi hd video link - for publish connect us no hidden spy secrete rules here desivideos more like desi video hd facebook page and join group for videos desi video hd for all desi viral video hd

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, 29 January 2020

কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন শরিফ রেখেছিলো এক পাগল

কুমিল্লায় পূজায় মূর্তির পায়ে পবিত্র কোরআন শরিফ সিসি টিভি ফোটেজ ভাইরাল



সিসি টিভি ক্যামেরার ফুটেজ দেখুন 


 


কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন শরিফ রাখা ব্যক্তিকে শনাক্ত করা হয়েছে। তাঁর নাম ইকবাল হোসেন (৩৫) বাবার নাম নূর আহমেদ আলম। বাড়ি কুমিল্লা নগরের সুজানগর এলাকায়।


পুলিশের সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, ইকবাল হোসেন ভবঘুরে। কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে তাঁর সংশ্লিষ্টতা আছে কি না, সে বিষয়ে এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।


সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে ইকবাল হোসেনকে চিহ্নিত করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্র জানিয়েছে। কুমিল্লার পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ প্রথম আলোকে ঘটনায় একজনকে চিহ্নিত করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আজ বুধবার সন্ধ্যায় পুলিশ সুপার প্রথম আলোকে বলেন, পুলিশের একাধিক সংস্থার তদন্তে এই নাটকীয় অগ্রগতি হয়েছে। ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


কুমিল্লার পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ বলেছেন, আগামীকাল বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে।


মতামত--

পুলিশের ভাষ্যমতে তারা 'ইকবাল হোসেন' নামে একজনকে খুঁজে পেয়েছেন যে কুমিল্লার মন্দিরে হুনুমানের পায়ে পবিত্র কোরআন শরিফ রাখতে গেছে। এখন ইকবাল হোসেন'কে পাগল, মানুষিক ভারসাম্য হীন দেখিয়ে, কিংবা ক্রসফায়ার বা গুমের নাটক না সাজিয়ে প্লিজ বের করে ফেলুন, কে বা কারা ইকবাল হোসেন'কে সেখানে পাঠিয়েছে। আরো সোজা করে বলি, ঘটনার গডফাদার কে খুঁজে বের করুন!
আমরা বাংলাদেশের কিছু মানুষ, পুলিশের জজ মিয়া নাটক সম্পর্কে অবগত আছি। তাই পুলিশের এই হাটে হাড়ি ভাঙাকে ঠিক এখনই গ্লোরিফাই করতে পাছি না। ১০০ গজ দূরে থেকে এসে তারা ইকবাল হোসেদের ধরতে পারেন না, ঘন্টার পর ঘন্টা তাদের ফোন দিতে হয়, প্রত্যাকেটা মন্দিরে ঠিক হামলার সময়টাতেই দেশের ওসিদের ফোন বন্ধ থাকে! তথাপি ভাল যে, ৫ দিন পরে হলেও কাউকে খুঁজে পেয়েছেন। এখন প্লিজ, গদা ইকবালের গডফাদারকে বের করুন।
তবে একটা কথা বলি কি! বাংলাদেশের এলিটরা গদা ইকবালকে খুব ভাল পাবে, তাদের বলার একটা পথ বেরুবে- সী! দিস ইজ ইট! আই সেইড সো! তাঁর হিন্দু বন্ধুদের গদা ইকবালের ছবি দেখিয়ে আবারও বলবে 'আই এম সরি ডুড!'। কিন্তু যদি প্রশ্ন করা হয়, গদা ইকবালকে কে বা কারা রাতের আঁধারে পাঠিয়েছে? সেটা জিজ্ঞেস করলে তাদের মগজে ঠাডা পড়বে। এদের নির্লজ্জ্বতা ও হীনমান্যতার গদাটা ধরে টান দিলে দেশের অভিজাতদের সুশীলতা অবশিষ্ট থাকবে না।
হুজুররা উগ্রতা ছড়ায় এটা দিবালোকের মত সত্য কথা, তবে এই সত্যটা বলা সহজ এবং বললে এলিট ক্লাসে আঘাত আসে না। কিন্তু মন্ত্রী হাসানের তার ভাইয়ের, হানিফের, শামীম-আইভির, বেয়াই মোশারফের, কিংবা যুবলীগের নেতার নাম, চেয়ারম্যান নমিনেশান পাওয়াদের নাম বলা যায় না, যদিও তারা অন্তত আগের ঘটনায় স্পষ্ট হামলাকারী। এখনও লোকাল হিন্দু, আক্রান্ত মণ্ডপের/মন্দিরের পুরহিত, কেন্দ্রীয় হিন্দু মহাজোটের মহাসিচবের তদন্তে যেহেতু স্থানীয় আওয়ামীলীগ এম্পির কথা এসেছে, এলিট্রা কেউ বলবে না, ওয়েল উনাকে গ্রেফতার করুন, উনি নির্দোষ প্রমাণিত হলে ছাড়া পাবেন! এটা তারা বলবেন না, কারণ কাজটা করলে, তাদের শ্রেণী মর্যাদাটা খসে পড়বে, অভিজাতদের সুশীলতা অবশিষ্ট থাকে না।
এখানে সরকার, এজেন্সি আর গডফাদারকে নিয়ে বললে সোশ্যাল ক্লাস চলে যায়, কিন্তু ফুটসোলজারকে গালি দিলে সোশ্যাল ক্লাসে গ্লোরিফাই হয়। রাজনীতিবিদ নামক দুর্বিত্তরা পবিত্র কোরআন অবমাননার মাধ্যমে দুই সম্প্রদায়কে অপমান করেছে, সচেতন অন্তর্ঘাত করেছে, এই সত্যটা বলা যায় না এবং বলা হবে না। এলিট মব জাস্টিস হবে।
কথা হচ্ছে, এই এলিট জাস্টিসে সনাতন ধর্মী গরিব হিন্দুর নিরাপত্তা আসবে না। ঢাকার এলিট পাড়া খুনীকে খুনী, দোষীকে দোষী না বলে হামলাকারীদের গডফাদারদের সচেতন এস্কেইপ দিচ্ছে, কারণ তারা আওয়ামীলীগের লোক। এই কালচারাল দুর্বিত্তপনার বন্ধ না হলে, খোদা চাহেত বেঁচে থাকলে আরো ১০-১২ বছর পরে এসেও কোন এক হামলার পরে এই একই কথা আমাকে বলতে হবে।

এটা দিবালোকের মত স্পষ্ট যে, 'আমি লজ্জ্বিত' বলতে বলতে নির্লজ্ব হয়ে পড়া এলিটরা পাছার লেংটি শুধু নয় পাছার ছাল খসে পড়লেও বলবে না, তুই দায়ী!
............।।

 কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে কোরআন শরিফ রেখেছিলো ইকবাল হোসেন নামের ব্যাক্তি ভবগুরে বলেছে পুলিশ https://youtu.be/IHz1sTh-xVE


কুমিল্লায় পূজায় সিসি টিভি ফোটেজ ভাইরাল https://youtu.be/u0d5ytnvJ6o

বেরিয়ে আসছে কার সহযোগিতায় কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে কোরআন https://youtu.be/IHz1sTh-xVE

কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা ছেলেটি পাগল ও নেশাখোর বলে জানিয়েছে তার মা https://youtu.be/IHz1sTh-xVE

বাংলাদেশে হিন্দু মুসলিম দাঙ্গা https://youtu.be/w_cbxhBP35E

মসজিদে নামাজে হিন্দুদের হামলা আর মন্দিরে হামলা করে মূর্তি ভাঙ্গা https://youtu.be/w_cbxhBP35E

বাংলাদেশে হিন্দু মুসলিম দাঙ্গা - মসজিদে নামাজে হিন্দুদের হামলা https://youtu.be/w_cbxhBP35E

মসজিদ বানাতে দিচ্ছেনা হিন্দুরা নামাজে মুসল্লিদের উপর হামলা https://youtu.be/MBKMD3iM7S8

জমি দখল করে নিচ্ছে ইসকন হিন্দুরা https://youtu.be/MBKMD3iM7S8

ভারতে মুসলিম মেয়েদেকে হিন্দুরা নষ্টামি করছে ঘর থেকে তুলে নিয়ে https://youtu.be/kJu0EfgCsWM হিন্দুদের গোপন ভিডিও ফোনালাপ ফাঁস - বাংলাদেশ নিয়ে ষড়যন্ত্র https://youtu.be/mc71n4Wf0NY মোদিকে গালাগালি করে গান গেয়ে ভাইরাল তিন যুবক https://youtu.be/OSeHVWf9Z7E হিন্দুদের মুর্তি ভাংচুর - উগ্র হিন্দু গোষ্টির কাজ https://youtu.be/PmNpBAQcs8U হিন্দু নেতার গোপন বক্তব্য ফাঁস https://youtu.be/Sj45-4czUTA

হিন্দু মেয়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহন করায় মা বাবার মিথ্যা অপবাদ https://youtu.be/e7o0tTsCYxE










History of India -  Jawahar lal Nehru, Jinnah, Mahatta Gandi


Naval officer, his name is Lewis ‘Dickie’ Mountbatten! Of course he had another identity, himself a descendant of Queen Victoria! Dickie, the wealthy granddaughter of a Jewish banker, and at the time considered `the most beautiful woman in England`, proposed to Edwina Ashley! 




The incident took place in the twenties of the nineteenth century. In fact, Dickie proposed to him as a result of his love affair, and he married Edwina Ashley, the most beautiful woman in England at the time! However, the life of the Mountbatten couple is gone, going through many ups and downs, it cannot be said that their married life was very happy. 

World War II followed in the footsteps of many events; It started, at one point the storm stopped! As a result, the map of the whole world changed! Two years later, in 1947, Dickie was appointed Viceroy of India and moved Edwina to the Viceroy's Palace in India. And just at that moment, Edwina meets her dream man, whom she has waited years and years to meet, who has spent hundreds of thousands of sleepless nights, not longing for the comfort and solace of multiple men. 

That man is Jawaharlal Nehru. And the reader must have understood - who Dickie was, who was universally known as the Viceroy Lord Mountbatten! India is going through a really difficult time. Dickie, better known as Viceroy Lord Mountbatten, was then busy arbitrating between the Congress and the Muslim League. 

How India will become independent, whether it will be fragmented or whether the entrances will form the United States with autonomy, his sleep is forbidden. On the other hand, in the interim government formed by the British for the transfer of power, some departments were divided between the Congress and the Muslim League. As a result, Congress leader Sardar Patel was given charge of the home department and Muslim League leader Liaquat Ali Khan was given charge of the finance department. Within a few days, the Congress leaders realized that it was a great mistake to leave the finance department in the hands of the Muslim League.

 Because without the approval of Liaquat Ali Khan, Sardar Patel could not appoint a single servant. As a result, the decisions taken by the Congress leaders had to wait a long time to be implemented. According to Maulana Azad, the situation is due to Congress leader Sardar Patel. Because Sardar Patel left the Home Department in his own hands and gave the Finance Department to Liaquat Ali Khan. 

Taking advantage of the sharp differences of opinion among the members of the Governing Body, Lord Moundbatten gradually took full power. Lord Mountbatten said that the only solution was to divide India. In fact Lord Mountbatten wanted to keep both sides happy and convinced both sides that there was no way Pakistan could not be created. Mr. Mountbatten sowed the seeds of Pakistan in the minds of senior Congress leaders. And among the Indian leaders, Sardar Patel was the first to adopt Mountbatten's idea. 

On the other hand, the sleep of Edwina and Lady Mountbatten is in the thoughts of Haram Jawahar. Edwina's love affair with Jawahar started at a hill station called Mashobra. They all went to the family party together. It was there that Edwinar formed the soul's relationship with the unrelated jewel. In a letter to Jawahar in the early stages of the relationship, Edwina opened her mind a little. She wrote, "I was very upset when you drove away this morning. But even though you left, you left me in a strangely peaceful feeling 

... Did I have the same feeling in your mind? ” Jawaharlal Nehru's love for Edwina was so intense and profound that he would pick up a piece of love for his beloved man from anywhere in the world. He used to bring sugar from the United States, cigarettes from Egypt and ferns from Sikkim. 
Once he went to Orissa and took pictures of lustful sculptures from the temple of the sun god. However, their love was hidden! What could be the reason behind this concealment is still a mystery. Because the last viceroy of British India knew everything from the beginning about Edwina's relationship with Jawahar. 

It even had its hidden Oscars. He was also reluctant to show that kindness to those close to him, “Edwina is fine. He is good in the forest with Nehru. When they are together, they are very happy. Good luck to them. ” So how did Lord Moundbatten persuade Jawaharlal Nehru to break up India with his wife! Maybe, history was not only in Hindu-Muslim, but also in this direction! It is said that while the Mountbatten was on its way to Britain, tearing India to pieces, Edwina wanted to present Jawahar with a very expensive diamond ring. But Jawahar refused to accept the ring. 

So Edwina handed the ring to Jawahar's daughter Indira Gandhi. He said that if he ever faced a financial crisis, he should use the ring. Even after he left India, Edwiner continued to communicate with Jawahar through letters. They exchanged numerous letters with each other. When Edwina died of a sudden cardiac arrest at the age of 59, there was a trunk full of letters right next to her sheer. 

Needless to say, whose letters! Edwin wanted his last address to be in the heart of the sea. His wish was granted. Meanwhile, on hearing the news of Priyatma's death, the first Prime Minister of India sent a naval ship to the place where Edwina was buried. The Navy laid a wreath on behalf of Jawahar at the tomb of Edwin Salil. Later, India's first Prime Minister Jawaharlal Nehru also attended the Edwina memorial service. 

But, in fact, whether the people of India mourned Edwina's departure is as questionable as there is room for doubt about the purity of the Jawahar-Edwina love story. Many questions to people - was there really love between Jawahar and Edwina, if so, exactly how deep was it? Or why Jawaharlal Nehru, who was not willing to break up India, finally agreed to break up India? Edwina, Lady Moundbatten is responsible for this! Many people think that their love was not limited to the two of them, but affected the whole of India. 

Edwina played a key role in persuading Jawaharlal Nehru to divide India, as was the case with the then Congress president Maulana Azad. She shared her husband's thoughts with Jawahar, and gained his consent by exerting his influence on Jawahar. Think - many people think that this one Jawaharlal Nehru-Edwina love killed more than one million Indians! Not only that, 14 million Hindus, Sikhs and Muslims were displaced by the partition of India and this led to the largest exodus in human history. 

Disagree with writing: - Mountbatten never acknowledged Nehru's relationship with Edwina. Again silently accepted because of the royal aristocracy. The viceroy's wife is having an affair with an Indian. Think of what kind of personal insult it was. So even when he got the news of going to Edwiner Nehru's hotel in London, he remained silent. So there is no question of using him in India. 

- How did Jawaharlal Nehru finally agree to divide India? Maulana Azad thinks that there are two reasons for this. Being a- Lord Mountbatten's wife had a great influence in persuading Jawaharlal Nehru. Lady Mountbatten was very intelligent. There were also some interesting and friendly things in him through which he could attract others. Lady Mountbatten had great respect for her husband and often sought his consent by conveying her thoughts to those who at first disagreed with her husband's actions. 

The Lord is thought to have used his wife! Because he gave them the Oscars despite knowing their love! - This love story of Nehru-Lady Moundbatten is a popular chapter in the history of British India. The Muslim League leaders, on the other hand, felt that the present India benefited more from the partition of India because of their relationship. Nehru fans, on the other hand, have dubbed the relationship "Platonic Love". Nehru and Jinnah were both acquainted with Edwina or Edwina (because of the origin of the word) from Harris College, London. 

The three of them were classmates there. Before 1917, there was no one named Gandhiji in the national politics of India. Wasn't there this movement before? Lokmanya Tilak and Tatia Tope do not have their names. দেখতে King George V came to India in December 1910 to see the state of the Tilak movement. 

The following year, the capital was taken from Kolkata to Delhi. The Partition was abolished. King George V recommended Rabindranath for the Nobel Prize. Six years later, Gandhiji came to India from South Africa. This Jinnah introduced Gandhiji to the Indian leaders.

2 comments:

  1. Like 온라인카지노 its northern neighbor New Jersey, Delaware is among the many most progressive gaming states alongside the East Coast. While Kansas is no Las Vegas, it offers residents and visitors some choices through a variety of|quite so much of|a wide range of} gambling niches in particular person - though none via the web. The best online gambling websites offer players a generous welcome bonus with low wagering necessities as well as|in addition to} some further promotions.

    ReplyDelete
  2. It’s a very helpful but pretty inexpensive cnc machining course of. A more advanced Turning Center could have the power to mill as properly. To do that, the spindle axis must function as a servo so {it can be|it could be} exactly positioned at a particular angle. Turning Centers that may act as milling machines are best shower caps called Mill-Turn Machines.

    ReplyDelete

Popular Posts

Post Bottom Ad

People search us for - bd viral video link desi video hd all desi viral video new viral video bd recent viral video link desivideos desi video hd all desi viral video hd - new desi videos hd download link. In desivideos you can share your viral video desi video for all desi viral video hd - for desivideos more like desi video hd facebook page and join group for videos desi video hd for all desi viral video hd